ঠিক কোন কারণগুলোর জন্য বিচ্ছেদ হয় দাম্পত্যে? – Editortoday
BIGtheme.net http://bigtheme.net/ecommerce/opencart OpenCart Templates
Monday , May 1 2017
Breaking News
Home / অন্যান্য / ঠিক কোন কারণগুলোর জন্য বিচ্ছেদ হয় দাম্পত্যে?

ঠিক কোন কারণগুলোর জন্য বিচ্ছেদ হয় দাম্পত্যে?

বিবাহ অতি বিষম বস্তু। সামলানো বড় দায়।

এই পথ বড় সূক্ষ্ণ। এক চুল এদিক-ওদিক হওয়ার জো নেই। বিপথের মাশুল বেশ ভালোভাবেই দিতে হয় দুই পক্ষকে। আর এই দুই পক্ষের কাজিয়ার সবচেয়ে বেশি সাক্ষী থাকে তৃতীয় এক পক্ষ। যারে কয় ‘ডিভোর্স ল’ইয়ার’। পরম যত্নে যারা স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বিচ্ছেদ ঘটান, তারাই বাতলালেন বিবাহ বিভ্রাটের এই উপায়গুলি।

কথা বন্ধ : দুটি মানুষ যখন একসঙ্গে থাকে, একটু আধটু খুঁটিনাটি লেগেই থাকে। মনের রাগ মনে পুষে না রেখে ঝগড়াটা করে ফেলাই উচিত। অনেকেই তা করেন না। মনে ক্ষোভ পুষে রেখে চুপ করে থাকার ফলে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে দূরত্ব বাড়তে থাকে। আর কখন যে সে দূরত্ব বিশাল আকার নেয়, কেউ টেরই পান না।

যৌনতায় অনীহা : ভালোবাসায় মনের প্রাধান্যের কথা অনেকেই বলে থাকেন। তবে ‘প্লেটোনিক লাভার’রা ভুলে যান শরীর থাকলে, তার চাহিদাও থাকবে। সেই চাহিদা সঠিকভাবে পূরণ না হলে তার প্রভাব সম্পর্কে পড়তে বাধ্য।

বিপরীত স্বভাব : বিপরীত মেরুতেই চুম্বকের আকর্ষণ থাকে এ কথা সত্যি। কিন্তু প্রেমে এই আকর্ষণ যতটা মধুর, ঠিক ততটা বিয়ের ক্ষেত্রে নয়। কারণ বিয়ের পর স্বামী-স্ত্রীকে একসঙ্গেই বসবাস করতে হয়। সেখানে আপনার যদি সকালে দেরিতে ওঠার অভ্যাস থাকে এবং আপনার সঙ্গীর ভোরে, তবে ঘটতে পারে বিপত্তি।

পেশার নেশা : আধুনিক জীবনের ইঁদুর দৌড়ে কেই বা পিছনে পড়ে থাকতে চায়? কিন্তু এই প্রতিযোগিতার দৌড়ে কখন মনের মানুষটা পিছনে পড়ে যায়, সেই খেয়াল বেশির ভাগ স্বামী-স্ত্রীর থাকে না। স্বামী-স্ত্রীর অজান্তেই পেশার এই নেশাতেই তিক্ত হয়ে যায় সম্পর্কের মাধুর্য।

অবজ্ঞা : স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্কে দুজনের গুরুত্বই সমান। আর সেই সম্মান দুজনকেই বজায় রাখতে হয়। এক অসাবধান হলেই বিপত্তি। স্বামী যদি স্ত্রীকে খাটো মনে করেন, তাতেও বিপত্তি। আর স্ত্রী যদি নিজেকেই সর্বেসর্বা মনে করেন তাতেও বিপত্তি।

প্রেমের ভাষা অপছন্দ : শব্দ নাকি ব্রহ্ম। শব্দের মাহাত্ম্যে বিশাল পর্বতকেও টলানো সম্ভব। তবে, এর অপপ্রয়োগে পর্বতের মূষিক প্রসবও হতে পারে। তাই প্রেমের শব্দগুলি চয়নের ক্ষেত্রে হামেশা সাবধানতা অবলম্বন করবেন।

টাকার টানাপড়েন : আমার টাকা আমার, তোমার টাকা তোমার। এই ধারণা যদি স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে চলে আসে, তাহলেই মুশকিল। টাকা প্রিয় বস্তু ঠিকই, তবে দানকেও পরম ধর্ম হিসেবে মেনে চলতে হবে। আর এই পথেই আমি-তুমি তরজা ছেড়ে ‘আমরা’কে সবচেয়ে বেশি প্রাধান্য দিতে হবে।

Leave a Reply